শুক্রবার, ০৩ Jul ২০২০, ০৪:৪২ পূর্বাহ্ন

আমাদের অফার :
অনলাইন নিউজ পোর্টাল মাত্র ৩০০০ টাকা থেকে শুরু - 01770896661
প্রধানমন্ত্রীর কাছে খোলা চিঠি পাঠালেন তালার আওয়ামীলীগ কর্মী।

প্রধানমন্ত্রীর কাছে খোলা চিঠি পাঠালেন তালার আওয়ামীলীগ কর্মী।

 

শেখ রায়হান হোসেন,
পাটকেলঘাটা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি।
সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলা আওয়ামীলীগের বার বার নির্বাচিত সভাপতি ও গত জাতীয় নির্বাচনে (তালা-কলারোয়া) সাতক্ষীরা-১ আসনের সংসদ সদস্য প্রার্থী শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান শেখ নুরুল ইসলামের জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ ফরহাদ কংকন তালা উপজেলা আওয়ামীলীগের একজন কর্মী হিসাবে দলের প্রানের দাবী তুলে ধরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে খোলা চিঠি পাঠিয়েছে। শুক্রবার (১৭এপ্রিল) রাত্র ৯ টার সময় তার নিজস্ব সোস্যাল মিডিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য এ খোলা চিঠি পাঠায়।

সে তার চিঠিতে লিখেছে, সাতক্ষীরা-১ আসনের অন্তর্ভুক্ত আওয়ামীলীগ এর বর্তমান সাংগাঠনিক অবস্থা নিয়ে কিছু কথা, দুমিনিট সময় পেলে অবশ্যই লেখাটা পড়বেন। লাইক কমেন্ট নিয়ে না ভেবে দুমিনিট সময় ব্যায় করে লেখা টা পড়লেই আমার কষ্ট সার্থক হবে। এভাবেই আপনার একটা শেয়ারে ও অনুভুতির দানে হয়তো নেত্রীর কাছে লক্ষ লক্ষ নেতাকর্মীদের মুক্তির আর্তনাদ পৌছে যাবে।

বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির প্রাণীদের মত বিলুপ্তপ্রায় রাজনৈতিক দল জাসদ/ওয়ার্কার্স পাটি দের রক্ষণাবেক্ষণ করার জন্য আওয়ামীলীগ সভানেত্রী বিশ্ব মানবতার জননী জননেত্রী শেখ হাসিনা মহাজোট নামক জাতীয় সমীকরনে নির্বাচন কে অংশগ্রহন মুলক করার স্বার্থে সারাদেশের হাতেগোনা কয়েকটি সংসদীয় আসনে শরীক দলের অযোগ্য প্রতিনিধি দের হাতে নৌকা প্রতীক তুলে দিয়েছিলেন বেশ কয়েকটি জাতীয় নির্বাচনে।
এখন সারা বাংলার সেই সব কোটা ভিত্তিক এমপি দের সংসদীয় আসনের অন্তর্ভুক্ত আওয়ামীলীগ এর প্রতিটি উপজেলা/জেলা ইউনিট গুলো চরম ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে চলেছে,। সারা বাংলাদেশের সমস্ত উপজেলার বর্তমান সাংগঠনিক অবস্থা বিশ্লেষণ করলে পরিষ্কার দেখতে পাবেন, শুধুমাত্র সেই সব সংসদীয় আসনেই আওয়ামীলীগের সংগঠনে মরিচা ধরেছে, যেখানে তিন লক্ষ নেতাকর্মীর অনুভুতির প্রতীক নৌকা জাতীয় স্বার্থে তুলে দেওয়া
হয়েছে দশ-বিশ জন নেতাকর্মী নিয়ে গঠিত বিলুপ্তপ্রায় দল জাসদ/ওয়ার্কার্স পার্টির প্রতিনিধিদের হাতে।
ইনু মেনন দের ঘৃণিত ইতিহাস সারা বাংলার মানুষ জানে।

সারা বাংলায় সমস্ত পর্যায়ের আওয়ামীলীগ এর সংগঠন বর্তমানে স্বর্ণযুগ পার করছে, শুধু সুখে নেই হাতেগোনা কয়েকটি ইউনিটের নেতাকর্মীরা। আমাদের ভাগ্যটা এতোটাই খারাপ যে আমরা সেই হাতেগোনা কয়েকটি সংসদীয় আসনের ভেতরে অবস্থান করছি।
আজও পর্যন্ত আওয়ামীলীগ নামের সংগঠনের তালা উপজেলা ইউনিটটি সর্বাঙ্গে ব্যাথা ও বুকচাপা কান্না নিয়ে প্রায় সমস্ত দলীয় কর্মসূচী পালন করে চলেছে, খলনায়ক দের কে চেয়ার ছেড়ে দিয়ে বোবা হাহাকার নিয়ে রাজনীতি করে চলেছেন তৃণমূল নেতাকর্মীরা। কিন্তু এভাবে চলতে থাকলে অদুর ভবিষ্যতে তালা উপজেলায় জয় বাংলার মিছিল টাও হয়তো বিলুপ্তির পথে হাটবে অথবা মিছিলের স্লোগান হবে দুনিয়ার মজদুর / আওয়ামীলীগ হটাও ইত্যাদি। তথাকথিত বুদ্ধিজীবী ও ভিন্ন দল থেকে আওয়ামীলীগে আসা নেতাকর্মীদের ভীড়ে একসময় হারিয়ে যাবে ত্যাগী ও পরিক্ষিত আওয়ামীলীগের সৎ নেতাকর্মীরা।

তাই আজ প্রয়াত জননেতা আওয়ামীলীগের দুর্দিনের বজ্র কন্ঠস্বর সৈয়দ আশরাফুল সাহেবের সেই অমর বাণী টি মনে পড়ে যায়,,

“আওয়ামীলীগ হওয়া যায় না, আওয়ামীলীগ হয়ে জন্মাতে হয়”

তাই মাননীয় নেত্রীর কাছে তালা-কলারোয়ার আড়াই লক্ষ নেতাকর্মীদের আর্তনাদ, আমাদের নৌকা আমাদের ফিরিয়ে দিন নাহলে তৃণমূল শক্তি হারাতে হারাতে একদিন অটিস্টিক ইউনিটে রুপ নেবে।

ভাল থাকুক আওয়ামীলীগ,
ভাল থাকুক বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সেই অনুভুতির প্রিয় সংগঠন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2019  trinomulbani24.com