শুক্রবার, ০৩ Jul ২০২০, ০৪:২০ পূর্বাহ্ন

আমাদের অফার :
অনলাইন নিউজ পোর্টাল মাত্র ৩০০০ টাকা থেকে শুরু - 01770896661
নিয়্যাতের বিশুদ্ধতাই আমল কবুলের প্রথম শর্ত !

নিয়্যাতের বিশুদ্ধতাই আমল কবুলের প্রথম শর্ত !

 

সাংবাদিক ও কলামিষ্ট সামীম হোসেন ঃইখলাস আরবি শব্দ এবং এ শব্দটি কয়েকটি অর্থে ব্যবহৃত হয়। বাংলা ভাষায় ক্ষেত্র বিশেষে এ শব্দটি অান্তরিকতা, ঘনিষ্ঠতা, অন্তরঙ্গতা ইত্যাদ্দি ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। কিন্তু ইসলামি শরীয়াতে ইখলাস শব্দটি শুধুমাত্র মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের সন্তুষ্টির জন্যে কোনো কাজ করার ক্ষেত্রেই ব্যবহৃত হয়ে থাকে। ইমাম রাগেব ইস্পানী (রাহ:) ইখলাস শব্দ সম্পর্কে লিখেছেন —– কোনো বস্তুকে পরিষ্কার -পরিচ্ছন্ন করে তার প্রকৃত গুণ -বৈশিষ্ট্যে প্রতিষ্ঠিত করা এবং খালেস শব্দের মধ্যেই এই ভাবধারা নিহিত রয়েছে। (মুফরাদ পৃষ্টা নং– ১৪০) এক কথায় ইখলাস এর অর্থ হলো নিজের সকল কাজ শুধু মাত্র মহান আল্লাহর সন্তুষ্টির লক্ষ্যেই আঞ্জাম দেয়া। যে কাজের মধ্যে সামান্যতম প্রদর্শনেচ্ছা, মিথ্যার আশ্রম, নাম -যশ খ্যাতি, প্রশংসা অর্জনের ইচ্ছা, বিখ্যাত বা প্রসিদ্ধ হবার আকাঙ্খা ইত্যাদির গন্ধও থাকবে না নেকীর কাজ করার মধ্যে যদি কোনো ধরণের প্রদর্শনেচ্ছা, প্রশংসা অর্জন বা বিখ্যাত হবার যশ -খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ার ইচ্ছা জড়িত থাকে তাহলে সে কাজ করার শ্রমই বৃথা যাবে এবং তা ব্যর্থতায় পর্যবসিত হবে। এ ধরণের নেকীর কাজ মহান আল্লাহর দরবারে কবুল হবার যোগ্য নয়। ইসলামি চিন্তাবিদগণ যে কোনো নেকীর কাজ কবুল হবার জন্যে গুরুত্বপৃর্ণ তিনটি শর্তের বিষয় ঊল্লেখ করেছেন, সে তিনটি শর্ত হলো —-
১.মহান আল্লাহ তায়ালার প্রতি ঈমান
২. কেবলমাত্র আল্লাহরই প্রতি একনিষ্ঠা বা আন্তরিকতা।
৩. অানুগত্য পরায়ণতা অর্থাৎ নবী কারীম (সা:) – এর অানুগত্য করা। অর্থাৎ নেকীর কাজ যে আল্লাহর সন্তুষ্ট করার উদ্দেশ্যে করা হচ্ছে, তাঁর প্রতি অবিচল বিশ্বাস থাকতে হবে।নেকীর কাজটি কেবলমাত্র তাঁকেই সন্তুষ্ট করার উদ্দেশ্যে করতে হবে এবং সেই নেকীর কাজটি নবী কারীম (সা:) যেভাবে করেছেন সেভাবেই করতে হবে। কাজের মধ্যে নিয়্যাতের বিশুদ্ধতা অবশ্যই থাকতে হবে রাইসুল মুহাদ্দিসীন ইমাম বোখারী (রাহ:) তাঁর সংকলিত বিখ্যাত হাদীস গ্রন্হ সহীহ আল বোখারী’র প্রথমেই এই হাদীসটি উল্লেখ করেছেন:-সমস্ত কাজের ফলাফল নিয়ত অনুযায়ী হবে,আর প্রত্যেক ব্যক্তি তাই লাভ করবে যে জিনিসের সে নিয়ত করবে। (বোখারী শরীফ হাদীস নং -১) মহান আল্লাহ তায়ালা ততক্ষণ পর্যন্ত কোনো নেকীর কাজ কবুল করেন না, যতক্ষণ পর্যন্ত কাজটি কেবলমাত্র অান্তরিকতার সাথে আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে নিবেদিত না হবে। (মুসনাদে আহমদ চতুর্থ খন্ড হাদীস নং ১২৬) ইমাম ফুযায়েল ইবনে আয়ায (রাহ:) বলেছেন—- কোনো নেকীর কাজ একমাত্র আল্লাহর উদ্দেশ্যে একনিষ্ঠভাবে করা হয়েছে, কিন্তু সে নেকীর কাজটি ইসলামি শরীয়াত তথা নবী করীম (সা:) কর্তৃক প্রদর্শিত পন্হা অনুসারে করা হয়নি,সে নেকীর কাজ কবুল হবার যোগ্য নয়। আবার কোনো নেকীর কাজ ইসলামি শরীয়াত তথা নবী করীম(সা:) কর্তৃক প্রদর্শিত পন্হা অনুসারেই করা হয়েছে,কিন্তু সে নেকীর কাজ একমাত্র আল্লাহরই উদ্দেশ্যে আন্তরিকতার সাথে করা হয়নি সে নেকীর কাজও কবুল হবার যোগ্য নয়। ঠিক এ কারণে নেকীর কাজ কবুল হবার জন্যে একনিষ্ঠতা, আন্তরিকতা থাকতে হবে এবং তা হতে হবে নবী কারীম (সা:) কর্তৃত প্রদর্শিত পন্হা অনুসারে আন্তরিকতা ও একনিষ্ঠতার অর্থ হলো কাজটি হতে হবে শুধুমাত্র মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের লক্ষ্যে এবং রাসুল (সা:) এর দেখানো পদ্ধতি অনুসারে। (মাদারেজুল সালেকীন,ইমাম ইবনুল কাইয়্যেম (রাহ) দ্বিতীয় খন্ড পৃষ্টা নং -৯৩) ইমাম ইবনুল কাইয়্যেম (রাহ:)ইখলাস তথা একনিষ্ঠতা ও আন্তরিকতা সম্পর্কে আল জুনাইদ (রাহ) এর প্রসিদ্ধ উক্তি উল্লেখ করেছেন ——- ইখলাস এর অন্তনির্হিত মর্ম হলো, যা কেবলমাত্র মহান আল্লাহ ও তাঁর বান্দার সাথেই সম্পর্কিত। যা শুধুমাত্র বান্দার হৃদয়ের গোপন কুঠুরিতেই সৃষ্টি হয় বান্দার হৃদয়ের একনিষ্ঠতা ও আন্তরিকতা সম্পর্কিত ফিরিশতাও জানতে পারে না বিধায় তাঁরা এ সম্পর্কে আমলনামায় কিছুই লিখতে পারে না। শয়তানও এ সম্পর্কে কিছুই জানতে পারেনা, এ কারনে সে এর ক্ষতি করতে পারে না। এটা নিজের প্রবৃত্তির আকাঙ্খার সাথেও সম্পর্কিত নয়, যা একে প্রবৃত্তির দিকে আকর্ষণ করতে পারে।(মাদারেজুস সালিকীন, দ্বিতীয় খন্ড পৃষ্টা নং -৯৫)

লেখক

মাওলানা: শামীম আহমেদ

ইসলামি কলামিস্ট
আলোচক,বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশন ঢাকা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2019  trinomulbani24.com