শুক্রবার, ০৩ Jul ২০২০, ০৩:২৫ পূর্বাহ্ন

আমাদের অফার :
অনলাইন নিউজ পোর্টাল মাত্র ৩০০০ টাকা থেকে শুরু - 01770896661
প্রেমিকার আত্নহত্যার হুমকীতে প্রেমিকের সংবাদ সন্মেলন।

প্রেমিকার আত্নহত্যার হুমকীতে প্রেমিকের সংবাদ সন্মেলন।

 

স্টাফ রিপোর্টার যশোরঃ-
যশোরের বেনাপোলে প্রেমিকার ফেসবুক আইডিতে আত্নহত্যার হুমকী পেয়ে শামিনুর রহমান(২৮)নামের এক যুবক সংবাদ সন্মেলন করেছেন।শনিবার সকালে বন্দর প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন প্রেমিক শামিনুর। নারয়ন পুর নিবাসী প্রেমিক শামিনুর ঘটনার বর্ননায় জানান,২০১৭ সালে পড়াশুনা করা কালীন সময়ে ধান্যখোলা গ্রামের মোঃ মনির হোসেন ন্যাদার কন্যা মহুয়া আক্তার মনিরা(২১) এর সহিত প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে ওঠে।বছর অতিবাহিত হলে তা গভীরে রুপ নিয়ে দু জনে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার সিন্ধান্ত নেন।বর্তমানে মহুয়া যশোর মহিলা কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যায়ন রত রয়েছে।সাম্প্রতি মহুয়া বিবাহের জন্য শামিনুর কে চাপ দেয় ও তার অভিভাবক কে বিয়ের প্রস্তাব পাঠাতে বলেন।সে অনুযায়ী শামিনুরের অভিভাবকরা বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে মহুয়ার বাসায় গেলে মহুয়ার অভিভাবকরা ১ সপ্তাহ পর তাদের কে মিলিয়ে দেওয়ার প্রতুশ্রুতি দেন।শামিনুরের পিতা পরমানিক হওয়ায় মহুয়ার পিতা ছলনার আশ্রয় নিয়ে ঝিকরগাছায় মহুয়ার অসন্মতিতে বিবাহ ঠিক করে।মহুয়া বিষয়টি আচ করতে পেরে শামিনুর কে গত ২৫জুন মোবাইলে একাধিক বার ফোন কল ও এস এম এস করে জানায়।শামিনুর তার অভিভাবক ও বন্ধদের দিয়ে মহুয়ার পিতা-মাতাকে বিষয়টি জানাই ও তাদের মিলিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দেয়।এতে ক্ষিপ্ত হয়ে অভিভাবকরা মহুয়াকে মারধর সহ ঘরবন্ধী করে রাখেন।মহুয়ার চাচাতো ভাই সোহেল শামিনুর কে হুমকী-ধামকী দেন ও শামিনুরকে যোগাযোগ করতে নিষেধ করেন।২৬জুন সকালে মহুয়া আক্তার মনিরা নামের ফেসবুক প্রোফাইলে শামিনুর ও মহুয়ার একসাথে ধারন কৃত ছবি পোস্ট দিয়ে অঘটন ঘটানোর(আত্নহত্যা) হুমকী দেন প্রেমিকা মহুয়া।বিষয়টি শামিনুরের দৃষ্টি গোচর হলে পুনরায় মহুয়ার পিতা কে জানান শামিনুর।মহুয়ার পিতা শামিনুরের ফোন কলে রেগে গিয়ে থানায় মামলা করা সহ দেখে নেওয়ার হুমকী দেন। শামিনুর লোক মারফত জানতে পারে মহুয়ার পিতারা তাকে মিথ্যা মামলা সহ গুম-খুঁনের পরিকল্পনা করছেন। তাৎক্ষনিক শামিনুর বেনাপোল পোর্ট থানায় স্ব-শরীরে হাজির হয়ে অভিযোগ দ্বায়ের করেছেন বলে জানা যায়।মহুয়ার অভিভাবক কর্তৃক চক্রান্ত ও মানহানীর আশঙ্কা থেকে শনিবার দুফুর ১ টায় সংবাদ সন্মেলনের মাধ্যমে প্রেমিকা মহুয়ার পরিবারের কাছে দুটি ভবিষ্যত জীবন নষ্ট না করার অনুরোধ জানান প্রেমিক শামিনুর।সংবাদ সন্মেলনে শামিনুরের অভিযোগ ও দাবীর বিষয়ে মহুয়ার পিতা এবং চাচাতো ভাই সোহেলের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তারা জানান,প্রেমিক শামিনুর অনবরত মহুয়াকে ডিস্টার্ব করে। এ নিয়ে আপনারা থানায় অভিযোগ করেননী কেন প্রশ্নে রেগে গিয়ে সংযোগ কেটে দেন।মহুয়ার প্রতিবেশী ও স্থানীয় গ্রামবাসী সুত্রে জানা যায়,মহুয়ার অন্যত্র বিবাহ ঠিক করেছেন তার পরিবার। বিয়েতে মহুয়ার আপত্তি থাকায় তাদের পরিবারে গোলযোগ বেধেছে। তারা যে কোন মুহুর্তে মহুয়া আত্নহত্যার পথ বেছে নিতে পারেন বলে ধারনা করছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2019  trinomulbani24.com